Monthly Archives: October 2020

image_pdfimage_print

বিবিধ ভাবনা-৫

ফিরোজ মাহবুব কামাল ১. মানব ইতিহাসে সবচেয়ে বর্বর শাসন হলো ফ্যাসিবাদী স্বৈরাচার। ফ্যাসিবাদ হলো অতি দুর্বৃত্তদের স্বৈরাচার। তখন দেশের পুলিশ, প্রশাসনের কর্মচারি, আদালতের বিচারক এবং সমগ্র রাষ্ট্রীয় অবকাঠামো দুর্বৃত্তদের চাকর-বাকরে পরিণত হয়। তখন অসম্ভব হয় আইনের শাসন। সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন তখন হত্যাযোগ্য অপরাধ রূপে গণ্য হয়। যাদেরকেই সরকার নিজেদের শত্রু মনে করে তাদেরকেই নির্মূল করে। […]

কেন এতো ধর্ষণ বাংলাদেশে?

ফিরোজ মাহবুব কামাল জ্বর কখনোই কোন সুস্থ্য দেহে আসে না। শরীরের উচ্চ তাপমাত্রাই বলে দেয় দেহে ম্যালেরিয়া, নিউমনিয়া, টাইফয়েড, কভিড বা অন্য কোন মারাত্মক ব্যাধি বাসা বেঁধেছে। জ্বর নিজেই কোন রোগ নয়, রোগের লক্ষণ মাত্র। তেমনি চুরি-ডাকাতি, ভোট-ডাকাতি, গুম-খুন, সন্ত্রাস ও ধর্ষণের ন্যায় অপরাধগুলোও কোন চরিত্রবান মানুষের জীবনে দেখা যায় না। এগুলো দেখা দিলে  বুঝা […]

বিবিধ ভাবনা-৪

ফিরোজ মাহবুব কামাল ১. ইবনে খলদুনকে বলা হয় সমাজ বিজ্ঞানের পিতা। মানব সভ্যতার উত্থান ও পতন নিয়ে তাঁর লেখনি অত্যন্ত ধারালো। তাঁর অভিমত হলো,শক্তিহীনতা সভ্যতার  ধ্বংস ডেকে আনে। নিজ সভ্যতা ও সংস্কৃতি নিয়ে স্বাধীন ভাবে বেঁচে থাকতে হলে শুধু সংখ্যায় ও সম্পদে নয় অস্ত্রেও শক্তশালী হতে হয়। প্রতিবেশীর করুণার উপর কখনোই স্বাধীনতা বাঁচে না। জানমাল, […]

বিবিধ ভাবনা-৩

                                       ফিরোজ মাহবুব কামাল                       ১. ঈমানদার হ্‌ওয়ার পুরস্কার যেমন বিশাল, তেমনি বিশাল হলো দায়বদ্ধতাটিও।  তাকে বাঁচতে হয় মহান আল্লাহতায়ালার নির্দেশিত পবিত্র মিশন নিয়ে। সে মিশনের মূল কথাঃ প্রতিটি মানুষ আমৃত্যু সচেষ্ট হবে ন্যায়ের প্রতিষ্ঠা এবং সকল প্রকার […]

বিবিধ ভাবনা-২

ফিরোজ মাহবুব কামাল ১. ঈমানদারের প্রতিটি যুদ্ধই জিহাদ। জিহাদ ভিন্ন অন্য কোন যুদ্ধে ঈমানদার তার জানমালের বিনিয়োগের কথা ভাবতেই পারে না। এ জন্য প্রতিটি ঈমানদারই হলো শতভাগ জিহাদী। অপর দিকে ধর্মহীন সেক্যুলারদের জীবনে জিহাদ বলে কিছু নাই; শাহাদত বলেও কিছু নাই। ইসলামী চেতনা নিয়ে বাঁচা বা মরাকে তারা সাম্প্রদায়িকতা মনে। ফলে কোন যুদ্ধে তারা মরলে নিশ্চিত […]

বিবিধ ভাবনা-১

ফিরোজ মাহবুব কামাল ১. মানব জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো জান্নাতের পথে চলার যোগ্যতা। সেটি ভাত-মাছে হয়না, তেমনি ডিগ্রি বা অর্থ লাভেও হয় না।সে জন্য চাই কোরআন বুঝা ও তা থেকে শিক্ষা নেয়ার সামর্থ্য। তাই ইসলামে এ কাজ ফরজ। এ জন্যই মহান আল্লাহতায়ালা প্রথমে নামায-রোযা, হজ-যাকাত ফরজ করেননি। ফরজ করেছন জ্ঞানার্জনকে। এবং নাযিল করেছন কোর’আন। কোর’আনী জ্ঞানার্জনের ফরজ আদায় না হলে মুসলিম হওয়াই অসম্ভব হয়। এবং নামায-রোযাও প্রাণহীন হয়। পবিত্র কোরআনে মহান আল্লাহতায়ালা বলেছেন, একমাত্র জ্ঞানবানগণই আমাকে ভয় করে। আল্লাহভীরু মুসলিম হওয়ার জন্য তাই […]